ই-পেপার

SITE UNDER CONSTRUCTION
বাংলাদেশ পুলিশের মুখপত্র
অব্যাহত প্রকাশনার ৬৩ বছর

ডিটেকটিভ ডেস্ক

বাংলাদেশ

জাতীয় সমবায় দিবস : নভেম্বর মাসের প্রথম শনিবার জাতীয় সমবায় দিবস। ‘উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দিবসটি পালিত হয়ে থাকে।

জেলহত্যা দিবস : ৩ নভেম্বর। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর সুদুর প্রসারি এক গভীর ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী অবস্থায় নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনাকারী জাতীয় চার নেতাকে। এই চার নেতা হলেন : বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ, মন্ত্রিসভার সদস্য এম মনসুর আলী এবং এ এইচ এম কামরুজ্জামান। বিশ্বের ইতিহাসে বিরল কারা হত্যাকান্ডের ঘটনাকে স্মরণ করে ৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবস পালিত হয়ে থাকে।

ঘটনার পরদিনই ৪ নভেম্বর তৎকালীন কারা উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি প্রিজন) আবদুল আউয়াল লালবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় রিসালদার মোসলেহ উদ্দিনের নাম উল্লেখ করে বলা হয়, তাঁর নেতৃত্বে চার-পাঁচজন সেনাসদস্য কারাগারে ঢুকে চার নেতাকে গুলি করে হত্যা করে। পরে বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়।

জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস : ৭ নভেম্বর। বাংলাদেশে ৭ নভেম্বর তারিখটিকে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস বা মুক্তিযোদ্ধা সৈনিক হত্যা দিবস হিসাবে পালন করা হয়। ১৯৭৫ সালের এই দিনে সংঘটিত সিপাহী ও জনতার বিপ্লব এর স্মরণে এই দিবসটি পালিত হয়।

নূর হোসেন দিবস বা স্বৈরাচার বিরোধী দিবস : ১০ নভেম্বর। বুকে ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক’ আর পিঠে ‘গণতন্ত্র মুক্তি পাক’- শ্লোগান লেখা একজন তরুণ ঢাকায় সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচীতে গিয়ে গুলিস্তানের জিরো পয়েন্টে পুলিশ-বিডিআরের (বিডিআর-এর পরিবর্তিত নাম এখন বিজিবি) গুলিতে নিহত হন।

সেইদিন পুলিশের গুলিতে আরও দুইজন নিহত হয়েছিল। কিন্তু শরীরে গণতন্ত্রের বার্তা লেখা এই যুবক গুলিতে নিহত হওয়ার পর সামরিক শাসনবিরোধী গণ-আন্দোলনের প্রতীকে পরিণত হয়েছিলেন। ওই চত্বরটির নামকরণ করা হয় নূর হোসেন চত্বর।

নূর হোসেনের মৃত্যু নিয়ে পরবর্তীতে অনেক গল্প-কবিতা-গান লেখা হয়েছে। নূর হোসেন (১৯৬১ – ১০ নভেম্বর ১৯৮৭) বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে স্মরণীয় ব্যক্তিত্ব, যিনি ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর তৎকালীন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি লেফটেন্যান্ট জেনারেল হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের স্বৈরাচারী শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে সংগঠিত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চলাকালে পুলিশের গুলিতে নিহত হন।

সশস্ত্রবাহিনী দিবস : ২১ নভেম্বর। ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দের এই দিনে বাংলাদেশের সর্বদিক দিয়ে সামরিক বাহিনীসহ তৎকালীন বাঙালি আপামর জনতা একত্রে আক্রমণ করে তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানি হানাদারদের উপর। এই বিশেষ দিনটিকে স্মরণ রেখেই এই দিনে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালন করা হয়।

জাতীয় আয়কর দিবস : ৩০ নভেম্ববর। ২০০৭ খ্রিস্টাব্দ থেকে এই দিবস বাংলাদেশে জাতীয়ভাবে পালিত হয়ে আসছে।

বৈশ্বিক

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস: ১৪ নভেম্বর। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস হল বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস সম্পর্কে বিশ্বময় সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে একটি ক্যাম্পেইন, যা প্রতিবছর ১৪ই নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস রোগ ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায়,বিশ্ব ডায়াবেটিস ফেডারেশন (আইডিএফ) ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ১৯৯১ সাল-এ ১৪ নভেম্বরকে ডায়াবেটিস দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এদিন বিজ্ঞানী ফ্রেডরিক বেনটিং জন্ম নিয়েছিলেন এবং তিনি বিজ্ঞানী চার্লস বেস্টের সঙ্গে একত্রে ইনসুলিন আবিষ্কার করেছিলেন।

বিশ্ব নিউমোনিয়া দিবস: ১২ নভেম্বর। অতীতে ১ নভেম্বর অথবা ২ নভেম্বর দিবসটি পালিত হতো। কিন্তু ২০১০ খ্রিস্টাব্দ থেকে সারা বিশ্বে সম্মিলিতভাবে ১২ নভেম্বর দিবসটি পালন শুরু হয়।

আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী দিবস : ১৭ নভেম্বর। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী দিবস প্রতি বছর ১৭ নভেম্বর তারিখে পালিত হয়। সারা বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ভিনদেশি শিক্ষার্থীদের সংস্কৃতি ও কর্মতৎপরতা বৈশ্বিক পর্যায়ে তুলে ধরার প্রচেষ্টা হিসেবে এই দিবসটি উদ্যাপন করা হয়ে থাকে। ১৯৩৯ সালের নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে চেকোস্লোভাকিয়ায় জার্মানরা আগ্রাসন চালালে এর বিপরীতে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করে ও স্বাধীন চেকোশ্লাভাকিয়া প্রজাতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভ আন্দোলন করতে থাকে। এক পর্যায়ে শিক্ষার্থিদের উপর দমন-পীড়ন চালানো হলে এর স্মারক হিসাবে এই দিবসটি পালিত হয়।

World Adult day- 18 November : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বে মিলিয়নেরও বেশি মানুষ রয়েছে এবং আগামী ১১ বছরে এই সংখ্যা দ্বিগুণ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। সবচেয়ে বড় সামাজিক রূপান্তরগুলির মধ্যে একটি হল জনসংখ্যা বার্ধক্য। শীঘ্রই, পৃথিবীতে শিশুদের চেয়ে বয়স্ক মানুষ থাকবে। অর্থনীতি বিশ্বায়নে বেশি সংখ্যক মানুষ শহরে বসবাস করে পারিবারিক ধরণ পরিবর্তন হচ্ছে এবং প্রযুক্তি দ্রুত বিকশিত হচ্ছে। পরিবারের প্রধানের সাথে প্রাপ্তবয়স্কের সম্পর্কের ভিত্তিতে একজন প্রাপ্তবয়স্ককে ‘বাড়িতে বাস করা’ বা ‘পিতামাতার সাথে বসবাস’ হিসাবে বিবেচনা করা হয়। একজন প্রাপ্তবয়স্ক ‘বাবা-মায়ের সাথে বসবাস করছে’ যদি অন্তত একজন বাবা-মা বাড়িতে থাকেন।

বিশ্ব টয়লেট দিবস : ১৯ নভেম্বর। বিশ্ব শৌচালয় দিবস (ডব্লিউটিডি), বিশ্ব শৌচাগার দিবস বা বিশ্ব টয়লেট দিবস হল প্রতিবছর ১৯ নভেম্বরে পালিত জাতিসংঘের একটি আনুষ্ঠানিক আন্তর্জাতিক দিবস, যা বিশ্বব্যাপী পয়ঃনিষ্কাশন সংকট মোকাবেলায় পদক্ষেপ গ্রহণের অনুপ্রেরণা জোগায়। সারা বিশ্বে ৪.২ বিলিয়ন মানুষ ‘নিরাপদ পয়ঃনিষ্কাশন’ ছাড়াই বাস করে এবং প্রায় ৬৭৩ মিলিয়ন মানুষ খোলা জায়গায় শৌচকর্ম করে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ৬ এর অন্যতম লক্ষ্য ‘সবার জন্য জল ও পয়ঃনিষ্কাশনের উপলব্ধতা এবং টেকসই ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা’। বিশেষ করে, লক্ষ্য ৬.২ ‘খোলা জায়গায় শৌচকর্ম বিলোপ করা ও পয়ঃনিষ্কাশন এবং স্বাস্থ্যবিধি রপ্ত করা’। যখন টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য প্রতিবেদন ২০২০ প্রকাশিত হয়, তখন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘আজ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ৬ অত্যন্ত শোচনীয়’ এবং এটি ‘২০৩০ সালের এজেন্ডা, মানবাধিকার উপলব্ধি এবং বিশ্বজুড়ে শান্তি ও নিরাপত্তা অর্জনের অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করছে’।

আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস : ১৯ নভেম্বর। আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস প্রতি বছর ১৯ নভেম্বর তারিখে পালিত হয়। সারা বিশ্বব্যাপী পুরুষদের মধ্যে লিঙ্গ ভিত্তিক সমতা, বালক ও পুরুষদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা এবং পুরুষের ইতিবাচক ভাবমূর্তি তুলে ধরার প্রধান উপলক্ষ হিসেবে এই দিবসটি উদ্যাপন করা হয়ে থাকে।

বিশ্ব শিশু দিবস (Universal Children’s Day, Celebrate Every November 20th). : ২০ নভেম্বর শিশু দিবস। শিশুদের নিয়ে উদযাপিত একটি দিবস। এটি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময় পালিত হয়ে থাকে। শিশু দিবসটি প্রথমবার তুরস্কে পালিত হয়েছিল সাল ১৯২০ সালের ২৩ এপ্রিল। বিশ্ব শিশু দিবস ২০ নভেম্বর-এ উদযাপন করা হয়, এবং আন্তর্জাতিক শিশু দিবস জুন ১ তারিখে উদযাপন করা হয়। তবে বিভিন্ন দেশ আলাদা তারিখে দিনটি উদযাপন করে থাকে।

আফ্রিকার শিল্পায়ন দিবস: ২০ নভেম্বর। আফ্রিকার শিল্পায়ন চাঙ্গা করা, সেখানকার কৃষির আধুনিকায়ন করা, আফ্রিকান অবকাঠামো উন্নয়নে অংশগ্রহণ, আর্থিক সহযোগিতা শক্তিশালী করা, সম্পদ ও জ্বালানি সহযোগিতা বাড়ানো, সর্বোপরি নীল অর্থনীতির সহযোগিতা সম্প্রসারণ।

বিশ্ব টেলিভিশন দিবস : ২১ নভেম্বর। বিশ্ব টেলিভিশন দিবস। ১৯২৬ সালের এই দিনে বিজ্ঞানী জন লোগি বেয়ার্ড টেলিভিশন আবিষ্কার করেন। তার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই ১৯৯৬ সালে জাতিসংঘ আয়োজিত এক ফোরামে ২১ নভেম্বরকে বিশ্ব টেলিভিশন দিবস হিসেবে পালনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একবিংশ শতাব্দির শুরুতেই মুদ্রণ মাধ্যমকে ছাপিয়ে জায়গা করে নেয় সম্প্রচার মাধ্যম। বর্তমান বিশ্বে টেলিভিশন সব থেকে শক্তিশালী প্রচার মাধ্যম হিসেবে বিবেচেত হয়ে আসছে।

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস। ২৫ নভেম্বর। ২৫ নভেম্বর ‘ইন্টারন্যাশনাল ডে ফর দ্য এলিমিনেশন অব ভায়োলেন্স এগেইনস্ট উইমেন’ বা আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস। এদিন থেকেই শুরু হয় আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষেরও। ১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পর্যন্ত পৃথিবীর দেশে দেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে এ পক্ষ পালিত হয়। নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে ১৯৮১ সালে লাতিন আমেরিকায় নারীদের এক সম্মেলনে ২৫ নভেম্বর আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। ১৯৯৩ সালে ভিয়েনায় বিশ্ব মানবাধিকার সম্মেলন দিবসটিকে স্বীকৃতি দেয়। জাতিসংঘ দিবসটি পালনের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয় ১৯৯৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর। বাংলাদেশে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদ দিবস উদযাপন কমিটি ১৯৯৭ সাল থেকে এই দিবস ও পক্ষ পালন করছে।

ফিলিস্তিন সংহতি দিবস: ২৯ নভেম্বর। ১৯৪৭ সালের ২৯ নভেম্বরে ফিলিস্তিন বিষয়ক জাতিসংঘ বিশেষ কমিটির রিপোর্ট বিবেচনার ভিত্তিতে জেরুজালেমকে আন্তর্জাতিক শহরের মর্যাদা দিয়ে আরব ও ইহুদি অধ্যুষিত দুটি রাষ্ট্রে ফিলিস্তিনকে বিভক্ত করার পরিকল্পনা সাধারণ পরিষদে অনুমোদিত হয়। এ অনুমোদনের পূর্ব পর্যন্ত ফিলিস্তিন ছিল একটি পৃথক রাষ্ট্র। লিগ অব নেশনস-এর ম্যান্ডেট বলে যুক্তরাজ্য এ ভূখন্ডটি শাসন করত। সে সময় রাষ্ট্রটির জনসংখ্যা ছিল প্রায় ১০ লাখ- যার তিনভাগের দুই ভাগ আরব এবং একভাগ ছিল ইহুদি। ১৯৭৭ সালে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ এ দিনটিকে প্রতিবছর ফিলিস্তিন জনগণের সঙ্গে সংহতি পালনের উদ্দেশ্যে আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে উদযাপনের আহ্বান জানায়। ১৯৯৯ সালের ১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ সদস্য রাষ্ট্রসমূহ কর্তৃক ফিলিস্তিন সংহতি দিবস পালনের উদ্দেশ্যে প্রচারের জন্য সবাইকে অনুরোধ জানায়।

ভালো লাগলে শেয়ার করে দিন :)

0 Comments

Leave a Reply

Avatar placeholder

Your email address will not be published. Required fields are marked *