ই-পেপার

SITE UNDER CONSTRUCTION
বাংলাদেশ পুলিশের মুখপত্র
অব্যাহত প্রকাশনার ৬৩ বছর

ডিটেকটিভ ডেস্ক

জনগণকে উন্নত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে পুলিশিংয়ের নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ, বাংলাদেশ ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার)। আইজিপি ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ দুপুরে নোয়াখালী জেলা পুলিশ লাইনস্ নোয়াখালী জেলার অফিসার ও ফোর্স এবং চট্টগ্রাম রেঞ্জের বিভিন্ন জেলার পুলিশ অফিসারদের সাথে এক বিশেষ কল্যাণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহবান জানান।

আইজিপি বলেন, মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে স্বচ্ছতার সাথে পুলিশ সদস্যদের পদোন্নতি প্রদান করা হচ্ছে। পুলিশের প্রশিক্ষণে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এ লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের সিলেবাস আধুনিকায়ন ও যুগোপযোগী করা হয়েছে। প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোতে উন্নত আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুলিশের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আনা হয়েছে উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, দীর্ঘ ৪০ বছর পর পুলিশের কনস্টেবল, সাব-ইন্সপেক্টর ও সার্জেন্ট পদে নিয়োগবিধিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ইতোমধ্যে নতুন নিয়মে সম্পূর্ণ মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে কনস্টেবল পদে ৩ হাজার ‘বেস্ট অব দি বেস্ট’ প্রার্থী নিয়োগ করা হয়েছে। সাব-ইন্সপেক্টর পদে নিয়োগ চলমান রয়েছে। কনস্টেবল পদে আরও ৪ হাজার প্রার্থী নিয়োগের জন্য দরখাস্ত আহবান করা হয়েছে।

দেশ ও জনগণের সেবায় নিবেদিত পুলিশ সদস্যদের কল্যাণে গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালকে বিশ্বমানের বিশেষায়িত হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। পুলিশ হাসপাতালে ক্যাথল্যাব স্থাপন করা হচ্ছে। আগামীতে ক্যান্সারসহ অন্যান্য ইউনিট স্থাপন করা হবে। এছাড়া, পুলিশ সদস্যদের সন্তানদের লেখাপড়ার সুবিধার্থে তাদের জন্য বিভাগীয় শহরে আধুনিক মানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে বলেও আইজিপি উল্লেখ করেন।

আইজিপি তাঁর বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তিনি মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারী পুলিশ সদস্য এবং করোনাকালে জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান। সভায় নোয়াখালী পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের (পিটিসি) কমান্ড্যান্ট (ডিআইজি) এস এম রোকন উদ্দিন, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ আনোয়ার হোসেন, রেঞ্জাধীন বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপারসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় কনস্টেবল থেকে পুলিশ সুপার পর্যন্ত বিভিন্ন পদবীর পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যগণ তাদের বিভিন্ন বিষয় উত্থাপন করেন। এর আগে সকালে আইজিপি নোয়াখালী পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের ছয় তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন ও তিন তলা অস্ত্রাগার উদ্বোধন করেন।

পরে বিকালে আইজিপি নোয়াখালী জেলা পুলিশের বার্ষিক সমাবেশ ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। অনুষ্ঠানের সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জা। এসময় আইজিপি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়াক্ষেত্রেও পুলিশ সদস্যদের এগিয়ে যেতে হবে। তিনি বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ আনোয়ার হোসেন, নোয়াখালী জেলার পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলাম এবং অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ভালো লাগলে শেয়ার করে দিন :)

0 Comments

Leave a Reply

Avatar placeholder

Your email address will not be published. Required fields are marked *