ই-পেপার

SITE UNDER CONSTRUCTION
বাংলাদেশ পুলিশের মুখপত্র
অব্যাহত প্রকাশনার ৬৩ বছর

পয়লা বৈশাখ। বাঙালির নববর্ষ। যা একান্তই আমাদের জাতিসত্তার অংশ। বাংলা নববর্ষের প্রধান বৈশিষ্ট্যই হলো অসাম্প্রদায়িক চেতনা। আমাদের দেশে প্রচলিত অন্যান্য বর্ষপঞ্জীর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে ধর্মীয় ঐতিহ্য। কিন্তু বাংলা নববর্ষ ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে সকলের উৎসব। এককালে খাজনা আদায়ের সুবিধার্থে এ সনের প্রচলন হলেও কাল পরিক্রমায় বাংলা সন আমাদের অর্থনীতি ও সংস্কৃতিতে যুক্ত করেছে নতুন মাত্রা। পয়লা বৈশাখে খাজনা আদায়ের বেদনার্ত ইতিহাস মুছে ফেলে বাঙালি মেতে উঠেছে হালখাতার উৎসবে। পয়লা বৈশাখে গ্রামে-গঞ্জে, নদীর পাড়ে খোলা মাঠে কিংবা বটের ছায়ায় বসে বৈশাখী মেলা। গ্রামীণ মানুষ এসব মেলায় মুড়ি, মুড়কি, পুতুল, নানা রকম খেলনা, মাটির হাঁড়ি পাতিলসহ বেতের ও কাঠের তৈরি নানান আসবাবপত্র নিয়ে পসরা সাজান।

গ্রামকেন্দ্রিক সংস্কৃতির মধ্যেই বাঙালির আত্ম পরিচয় লুকিয়ে আছে। ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমল থেকে অদ্যাবধি রাষ্ট্রীয় জীবনে গ্রেগরীয় ক্যালেন্ডার অনুসরণ করা হলেও গ্রামীণ সমাজে বাংলা বর্ষপঞ্জীর গুরুত্ব এতুটুকুও কমেনি। কৃষক আজও ফসল বোনে বাংলা সনের দিন তারিখ মেনে। বাঙালির মানসে নববর্ষের রয়েছে ভিন্নমাত্রা। আমাদের নাগরিক জীবনেও পয়লা বৈশাখের আবেদন কম নয়। বরং বলা যায় দিনটি উপলক্ষে দেশজুড়ে চলে নানান উৎসব আয়োজন। পয়লা বৈশাখে রমনা-র বটমূলে ছায়ানটের অনুষ্ঠান হয়ে উঠেছে বর্ষবরণের অবিচ্ছেদ্য অংশ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের মঙ্গল শোভাযাত্রাও বর্ষবরণে যোগ করেছে ভিন্নমাত্রা।

বাংলা নববর্ষের হাত ধরে প্রায় একই সময়ে পাহাড়ে উদযাপিত হয় নৃগোষ্ঠির বৈসাবী উৎসব। মোট কথা এ সময়টা বাঙালি মেতে উঠে আনন্দ আয়োজনে। পাশাপাশি বৈশাখী মেলা গ্রামীণ অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার করে। বাঙালির হস্ত ও কারুশিল্প আজ দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশের বাজারেও নাম লিখিয়েছে। এভাবেই পয়লা বৈশাখ আমাদের অর্থনীতি ও সংস্কৃতির সাথে জড়িয়ে গেছে। পয়লা বৈশাখ এমন একটি উৎসব যে উৎসবকে মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান, নৃ-গোষ্ঠিসহ সকলেই সার্বজনীনভাবে প্রাণের আনন্দে বরণ করে নিয়েছে। কবির ভাষায়, বলা যায়, ‘মুছে যাক গ্লানি, ঘুছে যাক জরা অগ্নি স্নানে শুচি হোক ধরা’

নতুন বছর জরা গ্লানি ঝেড়ে ফেলে সকলের জীবনে শান্তি ও সমৃদ্ধির ধারা বয়ে আনবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা। শুভ নববর্ষ।

ভালো লাগলে শেয়ার করে দিন :)

0 Comments

Leave a Reply

Avatar placeholder

Your email address will not be published. Required fields are marked *